Saturday, 2 June 2018

Shreya Ghoshal Height, Weight, Age, Husband, Family, Biography & Wiki

শ্রেয়া ঘোষাল 
শ্রেয়া ঘোষালের   জীবন বৃত্তান্ত :
আসল নাম :- শ্রেয়া ঘোষাল  ।   
ডাকনামঃ পিউ    
জাতিসত্তা : বেঙ্গলি। 
পেশা      :-  গায়িকা  । 
:শারীরিক গঠন :
উচ্চতা (প্রায় ):-  ১৬০ সেন্টিমিটার,১.৬০ মিটার,৫ফুট ৩ ইঞ্চি 
ফিগার মেজারমেন্ট :৩৪-২৮-৩৪। 
ওজন  (প্রায় ):-৬০ কিলোগ্রাম 
চোখের  রঙ :- কালো  ।   
চুলের রঙ   : -কালো ।   
:ব্যাক্তিগত জীবন:
জন্ম সন :-১২ ই মার্চ   ১৯৮৪সন।  
বয়স :-(২০১৮ সালের হিসাবে) ৩৪ বছর 
জন্মস্থান  : দুর্গাপুর ,পশ্চিম বর্ধমান  ,পশ্চিমবঙ্গ ,ভারত । . 
রাশি : মীন   রাশি ।    
রাস্টীয়তা : ভারতীয় ।  
নিবাস : রাওয়াটাভাটা ,রাজস্থান  ,ভারত।  
স্কুলঃ অটোমিক এনার্জে সেন্ট্রাল স্কুল  রাওয়াটাভাটা ,রাজস্থান  ,ভারত।
কলেজঃ SEIS কলেজ অফ আর্ট সাইন্স এন্ড কমার্স ,সায়ান ,ওয়েস্ট মুম্বাই  । 
শিক্ষা যোগত্যা :গ্রজুয়েট ।  
আবির্ভাব :  তামিল গান : -"য়েন চেল্লান   "(২০০২সালে  ),হিন্দি গান "দোলা রে দোলা " (২০০২ সালে)
:পরিবার:
পিতা :বিশ্বজিৎ ঘোষাল 
বাবার সাথে 

মাতা  :শর্মিষ্টা ঘোষাল 
মায়ের সাথে 
বোন  :নেই  
ভাই  : সাম্যদীপ ঘোষাল  
ভাইয়ের সাথে 

ধর্ম    : হিন্দু  । 
বর্তমান নিবাস  : কলকাতা  ,পশ্চিমবঙ্গ ,ভারত।   
:প্রিয় পছন্দ :
প্রিয় অভিনেতা :গুরু দত্ত  । 
প্রিয় অভিনেত্রী : মাধুরী দীক্ষিত । 
প্রিয় খাবারঃ : রসমালাই । 
প্রিয় মিউজিক ডিরেক্টরঃ মদন মোহন ,আর ডি বর্মন ,এ আর রহমান।  
প্রিয় খলেয়র : সৌরভ গাঙ্গুলি । 
প্রিয় খেলাঃ ক্রিকেট। 
প্রিয় গায়িকাঃ লতা মঙ্গেস্কর ,আশা ভোসলে ,গীতা দত্ত ,নরাঃ জোন্স । 
শখ       :  রান্না করা ও গার্ডেনিং  ।   
আরও :
বৈবাহিক সম্পর্ক : বিবাহিত  ।  
প্রেমিকা/বান্ধবী   : শিলাদিত্য মুখোপাধ্যায় ।
স্বামীর সাথে 

স্বামীঃ শিলাদিত্য মুখোপাধ্যায়( ২০১৫সালে )।
বিবাহের তারিখঃ ৫ ই ফেব্রুয়ারি ২০১৫ সালে । 
সন্তান সন্ততি : নেই। 
বেতন             : অজানা। 
বিষয় সম্পত্তি  : অজানা  । 

শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি সমন্ধে কিছু অজানা কথা :
  • শ্রেয়া ঘোষাল কি ধূমপান করেন ? না 
  • শ্রেয়া ঘোষাল কি মদপান করেন ? না 
  • শ্রেয়া ঘোষাল পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুরে এক বাঙালি ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন ।
  •  তিনি রাজস্থানের কোটার কাছে রাওয়াতভাতা শহরে বড় হন । 
  • তাঁর বাবা বিশ্বজিৎ ঘোষাল পারমাণবিক শক্তি কেন্দ্রের একজন প্রকৌশলী ছিলেন । তাঁর মা সাহিত্যে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট।
  • চার বছর বয়স থেকেই শ্রেয়া তাঁর মার কাছে হারমোনিয়াম বাজানোয় সঙ্গ দিতেন ।
  • ৪ বছর বয়স থেকেই শ্রেয়া তার গান শিখতে শুরু করেন। 
  • কোটাতেই তিনি ভারতীয় আধুনিক সঙ্গীতের প্রশিক্ষণ নেন ।
  • জিটিভির ‘সা রে গা মা পা’ সঙ্গীত প্রতিযোগিতার শিশুদের বিশেষ পর্বে জয়ের মাধ্যমে শ্রেয়া বিখ্যাত সুরকার কল্যাণজী বীরজী শাহ'র নজর কাড়েন । কল্যাণজী ছিলেন এই প্রতিযোগিতার বিচারক । তাঁর পরামর্শেই শ্রেয়ার পরিবার মুম্বাইয়ে চলে আসেন । শ্রেয়া কল্যাণজীর কাছে দেড় বছর প্রশিক্ষণ নেন এবং এর পরও আধুনিক সঙ্গীতের প্রশিক্ষণ গ্রহণ চালিয়ে যান। 
  • শ্রেয়া ঘোষাল দ্বিতীয়বারের মতো জিটিভির ‘সা রে গা মা পা’ সঙ্গীত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সময় বিখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনসালীর নজর কাড়েন; এরফলে ২০০২ সালে তিনি শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় রচিত বিখ্যাত উপন্যাস দেবদাস অবলম্বনে সঞ্জয় লীলা ভন্সালী পরিচালিত দেবদাস চলচ্চিত্রের গানে পার্বতী চরিত্রে (ঐশ্বরিয়া রাই অভিনীত) কন্ঠ দেওয়ার সুযোগ পান।এ ছবিতে পাঁচটি গানে তিনি কন্ঠ দেন এবং তাঁর নৈপুণ্যের সুবাদে ২০০৩ সালে নতুন সঙ্গীত মেধা হিসেবে ফিল্মফেয়ার আর. ডি. বর্মন পুরস্কার পান। ডোলা রে গানটিতে কন্ঠ দেওয়ার জন্য কবিতা কৃষ্ণমূর্তির সাথে যৌথভাবে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার, আইফা অ্যাওয়ার্ড, জি সিনে অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন।
  •  মাতৃভাষা বাংলায় তাঁর বেশ কয়েকটি আধুনিক গানের অ্যালবাম রয়েছে । 
  • শ্রেয়া ঘোষাল স্টার ভয়েস অব ইন্ডিয়া - ছোটে উস্তাদ গানের প্রতিযোগিতায় গায়ক কুনাল গাঞ্জাওয়ালা ও সুরকার প্রিতমের সাথে বিচারকের ভূমিকা পালন করেছেন । মিউজিক রিয়েলিটি শো এক্স-ফ্যাক্টর-এ গায়ক সোনু নিগম ও চলচ্চিত্র পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালির সাথে বিচারকের দায়িত্ব পালন করেছেন ।২০১৩ সালে, শ্রেয়া ঘোষাল বিশাল দাদলানি ও শেখর রাভজিয়ানির সাথে ভারতীয় আইডল জুনিয়র প্রথম বছরে বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন ।

⏩⏪তার গাওয়া বাংলা গানের কিছু অ্যালবাম :



বেঁধেছি বীণা (১৯৯৮)

ও তোতা পাখি রে (১৯৯৮)

একটি কথা (১৯৯৯)

মুখর পরাগ (২০০০)
রুপসী রাতে (২০০০)
বনমালী রে (২০০২)
যাব তেপান্তর (২০০৩)
আকাশের মুখোমুখি (২০০২)
স্বপ্নের পাখা (২০০৩)
ঠিকানা (২০০৬)
কৃষ্ণ বিনা আছে কে (২০০৭)
যেতে দাও আমায় (২০০৮)
এই আকাশ তোমারই
মিলন পিয়াসী
রিম ঝিম
তুমি বলো আমি শুনি
"মেঘের পালক "

Share This
Previous Post
Next Post

Pellentesque vitae lectus in mauris sollicitudin ornare sit amet eget ligula. Donec pharetra, arcu eu consectetur semper, est nulla sodales risus, vel efficitur orci justo quis tellus. Phasellus sit amet est pharetra

0 মন্তব্য(গুলি):

thank you for comment